মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ২৯ জানুয়ারি ২০১৬

সাম্প্রতিক অর্জনসমূহ

          দেশের শিল্পায়ন, কর্মসংস্থান ও রপ্তানি বৃদ্ধিতে বস্ত্র ও পাট  মন্ত্রণালয়ের গুরুত্বপূর্ণ অবদান রয়েছে। নিজস্ব অর্থায়নে তিনটি পাটকল ও দুইটি বস্ত্রকল চালু করা হয়েছে। ২০১৩-১৪ অর্থ বছরে বস্ত্র ও পাট খাতে রপ্তানির পরিমাণ ছিল মোট রপ্তানি আয়ের  ৮৭.০৪%। বস্ত্রখাতে বিভিন্ন ক্যাটাগরির (বিএসসি, ডিপ্লোমা, টেক্সটাইল-ভকেশনাল) ৯,৪৮০ জন দক্ষ জনবল তৈরী করা হয়েছে।  দক্ষতা বৃদ্ধি ও পেশাগত উন্নয়নের জন্য ৫০,০০০ জন পাট চাষী, ১,৩০০ জন পাটকল কর্মকর্তা, ২,৫৫০ জন পাটকল শ্রমিক/কর্মচারী, ৭৫৩ জন তাঁতী এবং ২,৬০০ জন রেশম চাষীকে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে। বস্ত্র ও পাট খাতের লাইসেন্স ও পরিদর্শন ফি বাবদ ৩৫.০০ কোটি টাকা রাজস্ব আয় হয়েছে। তাঁত শিল্প উন্নয়নে তাঁতীদের অনুকূলে ৮.১২ কোটি টাকা ঋণ বিতরণ এবং ৭.৮৯ কোটি টাকা ঋণ আদায় করা হয়েছে। বহুমুখী পাট পণ্য হিসাবে জুট জিওটেক্সটাইল উদ্ভাবন করা হয়েছে এবং এর ব্যবহার সম্প্রসারণের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। রেশম চাষ উন্নয়নে গবেষণার মাধ্যমে নতুন তিনটি রেশমকীটের জাত ও  দুইটি তুঁতজাত উদ্ভাবন করা হয়েছে।


Share with :